রোহিঙ্গা ইস্যুতে মানবাধিকার সংগঠনের কনভেনশন কলকাতায়

কবিউল ইসলাম, টাইমস বাংলা, কলকাতা : সোমবার মৌলালি যুবকেন্দ্রে রোহিঙ্গা ইস্যুতে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলতে শহরে এই প্রথম সাতটি মানবাধিকার সংগঠনের পক্ষ থেকে  যৌথভাবে একটি কনভেনশন আয়োজন করা হয় ।এই সংগঠনগুলি হল বন্দিমুক্তি কমিটি,এপিসিআর,পিইউসিএল,এআইপিএফ,সিআরপিপি,এনএপিএম ও এফওডি ।এছাড়া এসএফআই সহ কয়েকটি ছাত্র সংগঠন এদিন কনভেনশনে যোগ দেন ।

এদিন কনভেনশনের দাবি,  রোহিঙ্গাদের উপর অত্যাচার বন্ধ করা,রোহিঙ্গাদের মায়ানমারে ফিরিয়ে নেওয়া, ভারতের আশ্রিত রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে না দেওয়া, প্রভৃতি 

 

মানবাধিকার কর্মী সুজাত ভদ্র বলেন, মায়ানমার ঘৃণার রাজনীতি করছেন রোহিঙ্গাদের অত্যাচারের মধ্য দিয়ে ।তাঁর মতে,সেখানে বিশেষ এক ধর্মকে প্রতিষ্ঠা করার উদ্দেশ্যে রোহিঙ্গাদের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে ।তিনি মায়ানমার সরকারকে কড়া নিন্দা করেন ।

বন্দি মুক্তি কমিটির সম্পাদক ছোটন দাশ বলেন, মানবাধিকার সংগঠনের পক্ষ থেকে শহরে প্রথম সভা তাতে মানুষের ঢল ।এরপর জেলায় জেলায় মানুষদের সচেতন করা হবে ও বৃহত্তর আন্দোলন করা হবে ।

জামাআতে ইসলামি হিন্দের পশ্চিমবঙ্গ আমির-এ-হালকা মাওঃ মহঃ নুরুদ্দিন বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমগ্র মানবজাতির সমস্যা কিন্তু ধর্মিয় সমস্যা বলে চালানো হচ্ছে ফলে সংখ্যালঘু সংগঠনগুলি পথে নেমে প্রতিবাদ করছে ।আজ মানবাধিকার সংগঠনগুলির এহেন প্রচেষ্টা প্রশংশানীয় ।তিনি আরও বলেন, অত্যাচারী এবং অত্যাচরিত দের কোন ধর্ম হতে পারে না ।তাই সমস্ত সম্প্রদায়ের মানুষের এগিয়ে আসতে হবে ।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, এপিসিআর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মশিয়ার রহমান, আমজেদ আলি, পিইউসিএল -র সর্ব ভারতীয় সহ-সভাপতি বিনায়ক সেন,এফওডি -র সদস্য অশোকেন্দু সেনগুপ্ত, আইনজীবী পার্থসারথি সেনগুপ্ত, সমাজকর্মী বোলান গঙ্গোপাধ্যায়,সাংবাদিক শুভজিৎ বাকচি,এসআইও নেতা আব্দুল হামিদ প্রমুখ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *