আর‌জিকর এসএস‌কেএম এ সুস্থ হ‌চ্ছেন রেজাউল মহ‌শিনরা, ওঁরাও চায় ব‌সিরহা‌টে শা‌ন্তি ফিরুক

নিজস্ব প্র‌তি‌নি‌ধি, টাইমস্ বাংলা, কলকাতা: হিন্দু মুসলমান সম্প্রী‌তির মিলন‌ক্ষেত্র ব‌সিরহাট। বাবা লোকনা‌থের কচুয়া আর ব‌সিরহা‌টের আল্লামা রুহুল আমি‌নের একান্ত আপন এ মহকুমা সাম্প্রদা‌য়িকতার আঘা‌তে আজ বিদ্ধস্ত! আত‌ঙ্কিত এলাকার সাধারণ মানুষ। সু‌বিধাবাদী ধর্মীয় আর রাজ‌নৈ‌তিক এজেন্ট‌দের চক্রা‌ন্তের শিকার মহ‌শিন,  রেজাউল আবদার ও স‌ফিকুলদের ম‌তো নি‌রীহ মুসলমানরা। কি অপরাধ ওঁদের? 

মহ‌শিন গা‌জি, বা‌ড়ি ব‌সিরহাট পার্শ্ববর্তী অনন্তপুর গ্রা‌মে। মান‌সিক ভারসাম্যহীন এই যুবক বি‌ভিন্ন এলাকা‌তে ভিক্ষা ক‌রে ক‌রে বেড়ায়। স্থানীয় মুসলমান‌দের দাবী মহ‌শিন গত ৪ঠা জুলাই ব‌সিরহাট স্টেশন লা‌গোয়া রা‌জিব ক‌লোনী‌তে ভিক্ষা কর‌তে গে‌লে সেখানকার রি‌ফিউ‌জি বাঙাল হিন্দুরা তার উপর চড়াও হয়। প্রত্যক্ষদর্শী‌দের বয়ান অনুযায়ী রড বাঁশ লা‌ঠি দি‌য়ে মহ‌শিনের উপর চ‌লে অমান‌বিক অত্যাচার। তারপর মৃতপ্রায় ওই মুস‌লিম যুবক‌কে পু‌লিশ উদ্ধার ক‌রে ব‌সিরহাট জেলা হাসপাতা‌লে নি‌য়ে গে‌লে প‌রি‌স্থি‌তির অবন‌তি দে‌খে আর‌জিকর মে‌ডি‌কেল ক‌লে‌জে তা‌কে স্থানন্ত‌রিত ক‌রা হয়। আর‌জিকরের আইসিইউ তে এখন মৃত্যুর স‌ঙ্গে পাঞ্জা লড়‌ছেন ব‌সিরহাট অনন্তপু‌রের মান‌সিক ভারসাম্যহীন এই যুবক মহ‌শিন গা‌জি।

অন্য‌দি‌কে এস এস কে এম হাসপাতা‌লে ভ‌র্তি আছেন ব‌সিরহাট এলাকার ছয়জন মুসলমান যুবক। তার ম‌ধ্যে গাড়াকু‌পির বাসীন্দা রেজাউল মন্ডলের অবস্থা খু‌বি আশঙ্খাজনক। তার মাথা‌তে একা‌ধিক অস্ত্রের আঘাত করা হ‌য়ে‌ছে ।

এসএস‌কেএম হাসপাতা‌লে রেজাউল মন্ডল-‌নিজস্ব চিত্র

এক‌দি‌কে আল্লার না‌মে নারা লাগা‌নো অজ্ঞ মুসলমান, অন্য‌দি‌কে শ্রীরামের না‌মে জয়ধ্বনী দেওয়া ধ‌র্মের এজেন্ট‌দের বিরু‌দ্ধে রু‌খে দাঁ‌ড়ি‌য়ে‌ছেন ব‌সিরহা‌টের শা‌ন্তি‌প্রিয় আপমর সাধারণ মানুষ। বি‌ভিন্ন এলাকা‌তে হিন্দু মুসলমা‌নের যৌথ উদ্যো‌গে তৈরী শা‌ন্তি ক‌মি‌টি কড়া নজর রে‌খে‌ছেন ধ‌র্মের ধ্বজাধারী এই দাঙ্গাবাজ‌দের দি‌কে। ‘অশা‌ন্তি নয় শা‌ন্তি চাই’ শ্লোগান দি‌য়ে বি‌ভিন্ন এলাকা‌তে চল‌ছে শা‌ন্তির মি‌ছিল। হিন্দু মুসলমান মি‌লে‌মি‌শে ক্ষ‌তিপুরন দেওয়ার হি‌ড়িক চল‌ছে এখ‌ন ব‌সিরহা‌টে। সম্প্রী‌তির এই মেলবন্ধন সমগ্র দে‌শের কা‌ছে ম‌ডেল হি‌সে‌বে তু‌লে‌ ধ‌রে‌ছেন ব‌সিরহাট বাদুড়িয়ার হিন্দু মুসলমানরা। নিরীহ রেজাউল মহ‌শিন, আর সাহানুর‌দের শুধু এক‌টিই কামনা এলাকায় আগের মতই শা‌ন্তি ফি‌রে আসুক। একই সা‌থে জা‌তি ধর্ম বর্ণ না দে‌খে চক্রান্তকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শা‌স্তির দাবী তু‌লে‌ছেন ওঁরা। 

এলাকার হিন্দু মুসলমা‌নের এই উদ্যো‌গে এখন খু‌শির জোয়ার বই‌ছে ব‌সিরহাট বাদুড়িয়া‌তে। আর শা‌ন্তি‌প্রিয় মানুষ গু‌লো হয়‌তোবা ম‌নে ম‌নে ভাব‌ছেন-তু‌মি আস‌বে ব‌লেই দেশটা এখ‌নো গুজরাত হ‌য়ে যায়‌নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *