সেপটিক ট্যাঙ্কের বিষাক্ত গ্যাসে মৃত ৩, শো‌কের ছায়া নদীয়ার চাপড়া এলাকায়

টাইমস্ বাংলা ডেস্ক: একে কি বলে বর্ণনা করা যেতে পারে?মর্মান্তিক!নাকি অবর্ণনীয়!পেটের তাগিদে বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিজের জীবন চলে যাবে বুঝতে পারেন নি কেউই।

 

তখন সকাল সাড়ে ৯ টা। নির্মীয়মাণ একটি বাড়ির কাজ চলছিল। কাজ করার মুহুর্তে একজন শ্রমিক অজান্তে হারিয়ে যেতে বসেছে। ঠিক থাকতে পারেন নি একই গ্রামের বন্ধু,সহকর্মী শ্রমিক। বন্ধুকে উদ্ধারে তিনিই ত্রাতার ভূমিকা গ্রহন করতে চেয়েছিলেন।কিন্তু সেও মৃত্যুর কাছে হার মানল। দুই শ্রমিককে বাঁচাতে আরো একজন ঝাঁপিয়ে পড়লেন।কিন্তু কোন মতেই শেষ রক্ষা হল না।

 

যখন তিনজন কে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হল,ততক্ষনে সব শেষ। সেপটিক ট্যাঙ্কের গ্যাসে মৃত্যু হল তিন জনের।রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার চাপড়াতে।মৃত দুই শ্রমিক হলেন বাকবুল মল্লিক(২৭),ফারুক মন্ডল(২৮) এছাড়া আব্দুল হাকিম মণ্ডল নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, এদিন সকালে হাট চাপড়া গার্লস স্কুলের পিছনে একটি নির্মীয়মাণ বাড়ির কাজ চলছিল।কাজে এসেছিলেন প্রায় ১০ কিমি দূর থেকে কয়েক জন শ্রমিক।সেই বাড়ির সেপটিক ট্যাঙ্কের সেন্টারিং এর কাঠ খুলতে নেমেছিল একজন নির্মীয়মাণ শ্রমিক।বেশ কিছু সময় পেরিয়ে গেলেও সে উপরে উঠছে না দেখে, সেপটিক ট্যাঙ্কে নেমে পড়ে আরো এক জন শ্রমিক।কিন্তু দুজনই আর উঠে আসছে না দেখে বাড়ির মালিক দুই শ্রমিকের নাম ধরে ডাকতে থাকেন।তাতেও সাড়াশব্দ না পেয়ে বাড়ির লোক জন চেঁচামেচি শুরু করে দিলে স্থানীয় লোক জন ছুটে আসেন। তাদের উদ্ধারে সেপটিক ট্যাঙ্কে আব্দুল হাকিম মন্ডল (৫৫) নামে একজন নেমে পড়েন। তিনিও আর উপরে উঠে আসতে ব্যর্থ হন।

 

এই ঘটনায় উদ্ধারে নেমে পড়ে স্থানীয় মানুষ ও চাপড়া থানার পুলিশ। তিন জনকে সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে উদ্ধার করে চাপড়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা ঐ তিন ব্যক্তিকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

 

পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, মিথেন গ্যাস থেকেই ওই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

 

ঘটনাটি শোনার পরই হাসপাতালে ছুটে যান চাপড়ার বিধায়ক রুকবানুর রহমান। তিনি তদারকি করেন।এদিনে তিন জনের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শোক স্তব্ধ পীতাম্বর পুর গ্রামও। এক জন উদ্ধারে, অপর জন। এবং সর্বশেষ তাদের দুজনকে বাঁচাতে অন্য এক জনের মৃত্যু চাপড়ার মানুষকে বাকরুদ্ধ করে দিয়েছে।চাপড়া এলাকায় সেপটিক ট্যাঙ্কের গ্যাসে তিন জনের মৃত্যুতে আকাশে, বাতাসে কান্নার শব্দ। গোটা পরিবেশ শোকে ভারাক্রান্ত।

 

সূত্র: স্টিং নিউ‌জের প্র‌তি‌বেদন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *